Prev 68. Surah Al-Qalam سورة القلم Next



First Ayah   1   الأية الأولي
بِسْم ِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
ن ۚ وَالْقَلَمِ وَمَا يَسْطُرُونَ

Noon walqalami wama yasturoon

Bangla
 
নূন। শপথ কলমের এবং সেই বিষয়ের যা তারা লিপিবদ্ধ করে,

 
Ayah   68:2   الأية
مَا أَنتَ بِنِعْمَةِ رَبِّكَ بِمَجْنُونٍ

Ma anta biniAAmati rabbika bimajnoon

Bangla
 
আপনার পালনকর্তার অনুগ্রহে আপনি উম্মাদ নন।

 
Ayah   68:3   الأية
وَإِنَّ لَكَ لَأَجْرًا غَيْرَ مَمْنُونٍ

Wa-inna laka laajran ghayra mamnoon

Bangla
 
আপনার জন্যে অবশ্যই রয়েছে অশেষ পুরস্কার।

 
Ayah   68:4   الأية
وَإِنَّكَ لَعَلَىٰ خُلُقٍ عَظِيمٍ

Wa-innaka laAAala khuluqin AAatheem

Bangla
 
আপনি অবশ্যই মহান চরিত্রের অধিকারী।

 
Ayah   68:5   الأية
فَسَتُبْصِرُ وَيُبْصِرُونَ

Fasatubsiru wayubsiroon

Bangla
 
সত্ত্বরই আপনি দেখে নিবেন এবং তারাও দেখে নিবে।

 
Ayah   68:6   الأية
بِأَييِّكُمُ الْمَفْتُونُ

Bi-ayyikumu almaftoon

Bangla
 
কে তোমাদের মধ্যে বিকারগ্রস্ত।

 
Ayah   68:7   الأية
إِنَّ رَبَّكَ هُوَ أَعْلَمُ بِمَن ضَلَّ عَن سَبِيلِهِ وَهُوَ أَعْلَمُ بِالْمُهْتَدِينَ

Inna rabbaka huwa aAAlamu biman dallaAAan sabeelihi wahuwa aAAlamu bilmuhtadeen

Bangla
 
আপনার পালনকর্তা সম্যক জানেন কে তাঁর পথ থেকে বিচ্যুত হয়েছে এবং তিনি জানেন যারা সৎপথ প্রাপ্ত।

 
Ayah   68:8   الأية
فَلَا تُطِعِ الْمُكَذِّبِينَ

Fala tutiAAi almukaththibeen

Bangla
 
অতএব, আপনি মিথ্যারোপকারীদের আনুগত্য করবেন না।

 
Ayah   68:9   الأية
وَدُّوا لَوْ تُدْهِنُ فَيُدْهِنُونَ

Waddoo law tudhinu fayudhinoon

Bangla
 
তারা চায় যদি আপনি নমনীয় হন, তবে তারাও নমনীয় হবে।

 
Ayah   68:10   الأية
وَلَا تُطِعْ كُلَّ حَلَّافٍ مَّهِينٍ

Wala tutiAA kulla hallafinmaheen

Bangla
 
যে অধিক শপথ করে, যে লাঞ্ছিত, আপনি তার আনুগত্য করবেন না।

 
Ayah   68:11   الأية
هَمَّازٍ مَّشَّاءٍ بِنَمِيمٍ

Hammazin mashsha-in binameem

Bangla
 
যে পশ্চাতে নিন্দা করে একের কথা অপরের নিকট লাগিয়ে ফিরে।

 
Ayah   68:12   الأية
مَّنَّاعٍ لِّلْخَيْرِ مُعْتَدٍ أَثِيمٍ

MannaAAin lilkhayri muAAtadin atheem

Bangla
 
যে ভাল কাজে বাধা দেয়, সে সীমালংঘন করে, সে পাপিষ্ঠ,

 
Ayah   68:13   الأية
عُتُلٍّ بَعْدَ ذَٰلِكَ زَنِيمٍ

AAutullin baAAda thalika zaneem

Bangla
 
কঠোর স্বভাব, তদুপরি কুখ্যাত;

 
Ayah   68:14   الأية
أَن كَانَ ذَا مَالٍ وَبَنِينَ

An kana tha malinwabaneen

Bangla
 
এ কারণে যে, সে ধন-সম্পদ ও সন্তান সন্ততির অধিকারী।

 
Ayah   68:15   الأية
إِذَا تُتْلَىٰ عَلَيْهِ آيَاتُنَا قَالَ أَسَاطِيرُ الْأَوَّلِينَ

Itha tutla AAalayhi ayatunaqala asateeru al-awwaleen

Bangla
 
তার কাছে আমার আয়াত পাঠ করা হলে সে বলে; সেকালের উপকথা।

 
Ayah   68:16   الأية
سَنَسِمُهُ عَلَى الْخُرْطُومِ

Sanasimuhu AAala alkhurtoom

Bangla
 
আমি তার নাসিকা দাগিয়ে দিব।

 
Ayah   68:17   الأية
إِنَّا بَلَوْنَاهُمْ كَمَا بَلَوْنَا أَصْحَابَ الْجَنَّةِ إِذْ أَقْسَمُوا لَيَصْرِمُنَّهَا مُصْبِحِينَ

Inna balawnahum kamabalawna as-haba aljannati ith aqsamoolayasrimunnaha musbiheen

Bangla
 
আমি তাদেরকে পরীক্ষা করেছি, যেমন পরীক্ষা করেছি উদ্যানওয়ালাদের, যখন তারা শপথ করেছিল যে, সকালে বাগানের ফল আহরণ করবে,

 
Ayah   68:18   الأية
وَلَا يَسْتَثْنُونَ

Wala yastathnoon

Bangla
 
ইনশাআল্লাহ না বলে।

 
Ayah   68:19   الأية
فَطَافَ عَلَيْهَا طَائِفٌ مِّن رَّبِّكَ وَهُمْ نَائِمُونَ

Fatafa AAalayha ta-ifunmin rabbika wahum na-imoon

Bangla
 
অতঃপর আপনার পালনকর্তার পক্ষ থেকে বাগানে এক বিপদ এসে পতিত হলো। যখন তারা নিদ্রিত ছিল।

 
Ayah   68:20   الأية
فَأَصْبَحَتْ كَالصَّرِيمِ

Faasbahat kassareem

Bangla
 
ফলে সকাল পর্যন্ত হয়ে গেল ছিন্নবিচ্ছিন্ন তৃণসম।

 
Ayah   68:21   الأية
فَتَنَادَوْا مُصْبِحِينَ

Fatanadaw musbiheen

Bangla
 
সকালে তারা একে অপরকে ডেকে বলল,

 
Ayah   68:22   الأية
أَنِ اغْدُوا عَلَىٰ حَرْثِكُمْ إِن كُنتُمْ صَارِمِينَ

Ani ighdoo AAala harthikum inkuntum sarimeen

Bangla
 
তোমরা যদি ফল আহরণ করতে চাও, তবে সকাল সকাল ক্ষেতে চল।

 
Ayah   68:23   الأية
فَانطَلَقُوا وَهُمْ يَتَخَافَتُونَ

Fantalaqoo wahum yatakhafatoon

Bangla
 
অতঃপর তারা চলল ফিসফিস করে কথা বলতে বলতে,

 
Ayah   68:24   الأية
أَن لَّا يَدْخُلَنَّهَا الْيَوْمَ عَلَيْكُم مِّسْكِينٌ

An la yadkhulannaha alyawmaAAalaykum miskeen

Bangla
 
অদ্য যেন কোন মিসকীন ব্যক্তি তোমাদের কাছে বাগানে প্রবেশ করতে না পারে।

 
Ayah   68:25   الأية
وَغَدَوْا عَلَىٰ حَرْدٍ قَادِرِينَ

Waghadaw AAala hardin qadireen

Bangla
 
তারা সকালে লাফিয়ে লাফিয়ে সজোরে রওয়ানা হল।

 
Ayah   68:26   الأية
فَلَمَّا رَأَوْهَا قَالُوا إِنَّا لَضَالُّونَ

Falamma raawha qalooinna ladalloon

Bangla
 
অতঃপর যখন তারা বাগান দেখল, তখন বললঃ আমরা তো পথ ভূলে গেছি।

 
Ayah   68:27   الأية
بَلْ نَحْنُ مَحْرُومُونَ

Bal nahnu mahroomoon

Bangla
 
বরং আমরা তো কপালপোড়া,

 
Ayah   68:28   الأية
قَالَ أَوْسَطُهُمْ أَلَمْ أَقُل لَّكُمْ لَوْلَا تُسَبِّحُونَ

Qala awsatuhum alam aqul lakumlawla tusabbihoon

Bangla
 
তাদের উত্তম ব্যক্তি বললঃ আমি কি তোমাদেরকে বলিনি? এখনও তোমরা আল্লাহ তা’আলার পবিত্রতা বর্ণনা করছো না কেন?

 
Ayah   68:29   الأية
قَالُوا سُبْحَانَ رَبِّنَا إِنَّا كُنَّا ظَالِمِينَ

Qaloo subhana rabbinainna kunna thalimeen

Bangla
 
তারা বললঃ আমরা আমাদের পালনকর্তার পবিত্রতা ঘোষণা করছি, নিশ্চিতই আমরা সীমালংঘনকারী ছিলাম।

 
Ayah   68:30   الأية
فَأَقْبَلَ بَعْضُهُمْ عَلَىٰ بَعْضٍ يَتَلَاوَمُونَ

Faaqbala baAAduhum AAala baAAdinyatalawamoon

Bangla
 
অতঃপর তারা একে অপরকে ভৎর্সনা করতে লাগল।

 
Ayah   68:31   الأية
قَالُوا يَا وَيْلَنَا إِنَّا كُنَّا طَاغِينَ

Qaloo ya waylana innakunna tagheen

Bangla
 
তারা বললঃ হায়! দুর্ভোগ আমাদের আমরা ছিলাম সীমাতিক্রমকারী।

 
Ayah   68:32   الأية
عَسَىٰ رَبُّنَا أَن يُبْدِلَنَا خَيْرًا مِّنْهَا إِنَّا إِلَىٰ رَبِّنَا رَاغِبُونَ

AAasa rabbuna an yubdilanakhayran minha inna ila rabbina raghiboon

Bangla
 
সম্ভবতঃ আমাদের পালনকর্তা পরিবর্তে এর চাইতে উত্তম বাগান আমাদেরকে দিবেন। আমরা আমাদের পালনকর্তার কাছে আশাবাদী।

 
Ayah   68:33   الأية
كَذَٰلِكَ الْعَذَابُ ۖ وَلَعَذَابُ الْآخِرَةِ أَكْبَرُ ۚ لَوْ كَانُوا يَعْلَمُونَ

Kathalika alAAathabu walaAAathabual-akhirati akbaru law kanoo yaAAlamoon

Bangla
 
শাস্তি এভাবেই আসে এবং পরকালের শাস্তি আরও গুরুতর; যদি তারা জানত!

 
Ayah   68:34   الأية
إِنَّ لِلْمُتَّقِينَ عِندَ رَبِّهِمْ جَنَّاتِ النَّعِيمِ

Inna lilmuttaqeena AAinda rabbihim jannatiannaAAeem

Bangla
 
মোত্তাকীদের জন্যে তাদের পালনকর্তার কাছে রয়েছে নেয়ামতের জান্নাত।

 
Ayah   68:35   الأية
أَفَنَجْعَلُ الْمُسْلِمِينَ كَالْمُجْرِمِينَ

AfanajAAalu almuslimeena kalmujrimeen

Bangla
 
আমি কি আজ্ঞাবহদেরকে অপরাধীদের ন্যায় গণ্য করব?

 
Ayah   68:36   الأية
مَا لَكُمْ كَيْفَ تَحْكُمُونَ

Ma lakum kayfa tahkumoon

Bangla
 
তোমাদের কি হল ? তোমরা কেমন সিদ্ধান্ত দিচ্ছ?

 
Ayah   68:37   الأية
أَمْ لَكُمْ كِتَابٌ فِيهِ تَدْرُسُونَ

Am lakum kitabun feehi tadrusoon

Bangla
 
তোমাদের কি কোন কিতাব আছে, যা তোমরা পাঠ কর।

 
Ayah   68:38   الأية
إِنَّ لَكُمْ فِيهِ لَمَا تَخَيَّرُونَ

Inna lakum feehi lama takhayyaroon

Bangla
 
তাতে তোমরা যা পছন্দ কর, তাই পাও?

 
Ayah   68:39   الأية
أَمْ لَكُمْ أَيْمَانٌ عَلَيْنَا بَالِغَةٌ إِلَىٰ يَوْمِ الْقِيَامَةِ ۙ إِنَّ لَكُمْ لَمَا تَحْكُمُونَ

Am lakum aymanun AAalayna balighatunila yawmi alqiyamati inna lakum lama tahkumoon

Bangla
 
না তোমরা আমার কাছ থেকেকেয়ামত পর্যন্ত বলবৎ কোন শপথ নিয়েছ যে, তোমরা তাই পাবে যা তোমরা সিদ্ধান্ত করবে?

 
Ayah   68:40   الأية
سَلْهُمْ أَيُّهُم بِذَٰلِكَ زَعِيمٌ

Salhum ayyuhum bithalika zaAAeem

Bangla
 
আপনি তাদেরকে জিজ্ঞাসা করুন তাদের কে এ বিষয়ে দায়িত্বশীল?

 
Ayah   68:41   الأية
أَمْ لَهُمْ شُرَكَاءُ فَلْيَأْتُوا بِشُرَكَائِهِمْ إِن كَانُوا صَادِقِينَ

Am lahum shurakao falya/too bishuraka-ihimin kanoo sadiqeen

Bangla
 
না তাদের কোন শরীক উপাস্য আছে? থাকলে তাদের শরীক উপাস্যদেরকে উপস্থিত করুক যদি তারা সত্যবাদী হয়।

 
Ayah   68:42   الأية
يَوْمَ يُكْشَفُ عَن سَاقٍ وَيُدْعَوْنَ إِلَى السُّجُودِ فَلَا يَسْتَطِيعُونَ

Yawma yukshafu AAan saqin wayudAAawnaila assujoodi fala yastateeAAoon

Bangla
 
গোছা পর্যন্ত পা খোলার দিনের কথা স্মরণ কর, সেদিন তাদেরকে সেজদা করতে আহবান জানানো হবে, অতঃপর তারা সক্ষম হবে না।

 
Ayah   68:43   الأية
خَاشِعَةً أَبْصَارُهُمْ تَرْهَقُهُمْ ذِلَّةٌ ۖ وَقَدْ كَانُوا يُدْعَوْنَ إِلَى السُّجُودِ وَهُمْ سَالِمُونَ

KhashiAAatan absaruhumtarhaquhum thillatun waqad kanoo yudAAawna ilaassujoodi wahum salimoon

Bangla
 
তাদের দৃষ্টি অবনত থাকবে; তারা লাঞ্ছনাগ্রস্ত হবে, অথচ যখন তারা সুস্থ ও স্বাভাবিক অবস্থায় ছিল, তখন তাদেরকে সেজদা করতে আহবান জানানো হত।

 
Ayah   68:44   الأية
فَذَرْنِي وَمَن يُكَذِّبُ بِهَٰذَا الْحَدِيثِ ۖ سَنَسْتَدْرِجُهُم مِّنْ حَيْثُ لَا يَعْلَمُونَ

Fatharnee waman yukaththibubihatha alhadeethi sanastadrijuhum min haythula yaAAlamoon

Bangla
 
অতএব, যারা এই কালামকে মিথ্যা বলে, তাদেরকে আমার হাতে ছেড়ে দিন, আমি এমন ধীরে ধীরে তাদেরকে জাহান্নামের দিকে নিয়ে যাব যে, তারা জানতে পারবে না।

 
Ayah   68:45   الأية
وَأُمْلِي لَهُمْ ۚ إِنَّ كَيْدِي مَتِينٌ

Waomlee lahum inna kaydee mateen

Bangla
 
আমি তাদেরকে সময় দেই। নিশ্চয় আমার কৌশল মজবুত।

 
Ayah   68:46   الأية
أَمْ تَسْأَلُهُمْ أَجْرًا فَهُم مِّن مَّغْرَمٍ مُّثْقَلُونَ

Am tas-aluhum ajran fahum min maghraminmuthqaloon

Bangla
 
আপনি কি তাদের কাছে পারিশ্রমিক চান? ফলে তাদের উপর জরিমানার বোঝা পড়ছে?

 
Ayah   68:47   الأية
أَمْ عِندَهُمُ الْغَيْبُ فَهُمْ يَكْتُبُونَ

Am AAindahumu alghaybu fahum yaktuboon

Bangla
 
না তাদের কাছে গায়বের খবর আছে? অতঃপর তারা তা লিপিবদ্ধ করে।

 
Ayah   68:48   الأية
فَاصْبِرْ لِحُكْمِ رَبِّكَ وَلَا تَكُن كَصَاحِبِ الْحُوتِ إِذْ نَادَىٰ وَهُوَ مَكْظُومٌ

Fasbir lihukmi rabbikawala takun kasahibi alhooti ith nadawahuwa makthoom

Bangla
 
আপনি আপনার পালনকর্তার আদেশের অপেক্ষায় সবর করুন এবং মাছওয়ালা ইউনুসের মত হবেন না, যখন সে দুঃখাকুল মনে প্রার্থনা করেছিল।

 
Ayah   68:49   الأية
لَّوْلَا أَن تَدَارَكَهُ نِعْمَةٌ مِّن رَّبِّهِ لَنُبِذَ بِالْعَرَاءِ وَهُوَ مَذْمُومٌ

Lawla an tadarakahu niAAmatunmin rabbihi lanubitha bilAAara-i wahuwa mathmoom

Bangla
 
যদি তার পালনকর্তার অনুগ্রহ তাকে সামাল না দিত, তবে সে নিন্দিত অবস্থায় জনশুন্য প্রান্তরে নিক্ষিপ্ত হত।

 
Ayah   68:50   الأية
فَاجْتَبَاهُ رَبُّهُ فَجَعَلَهُ مِنَ الصَّالِحِينَ

Fajtabahu rabbuhu fajaAAalahumina assaliheen

Bangla
 
অতঃপর তার পালনকর্তা তাকে মনোনীত করলেন এবং তাকে সৎকর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করে নিলেন।

 
Ayah   68:51   الأية
وَإِن يَكَادُ الَّذِينَ كَفَرُوا لَيُزْلِقُونَكَ بِأَبْصَارِهِمْ لَمَّا سَمِعُوا الذِّكْرَ وَيَقُولُونَ إِنَّهُ لَمَجْنُونٌ

Wa-in yakadu allatheenakafaroo layuzliqoonaka bi-absarihim lamma samiAAooaththikra wayaqooloona innahu lamajnoon

Bangla
 
কাফেররা যখন কোরআন শুনে, তখন তারা তাদের দৃষ্টি দ্বারা যেন আপনাকে আছাড় দিয়ে ফেলে দিবে এবং তারা বলেঃ সে তো একজন পাগল।

 
Ayah   68:52   الأية
وَمَا هُوَ إِلَّا ذِكْرٌ لِّلْعَالَمِينَ

Wama huwa illa thikrunlilAAalameen

Bangla
 
অথচ এই কোরআন তো বিশ্বজগতের জন্যে উপদেশ বৈ নয়।







:-: Go Home :-: Go Top :-: